Foysal

Shahid Foysal

by • October 28, 2006 • Know the MartyrsComments Off on Shahid Foysal263

নাম : শহীদ আব্দুল্লাহ আল ফয়সল
পিতা মো: আহসানুল হাই
মাতা : সাইয়্যেদা হাসনা বানু
বয়স : ২৪ বছর
স্থায়ী ঠিকানা : পাইনাদী, মোস্তফানগর,
সানারপাড়া, সিদ্ধিরগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জ
ভাইবোন : ৫ ভাই ও ২ বোন
শিক্ষাজীবন : শাহাদাতের সময় তিনি জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের অনার্স প্রথম বর্ষের ছাত্র ছিলেন।
সাংগঠনিক জীবন : সংগঠনের কর্মী ও অধ্যয়নরত বিভাগের সাংগঠনিক সম্পাদক ছিলেন।
শাহাদাতের তারিখ ও স্থান : ২৮ অক্টোবর ২০০৬ সিদ্ধিরগঞ্জ চিটাগাং রোডে আওয়ামী সন্ত্রাসীদের নৃশংস হামলায় মারাত্মক আহত হয়ে ইবনে সিনা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ২৯ অক্টোবর ২০০৬ তারিখে শহীদ হন।
শহীদ : ১২৯তম

২৮ অক্টোবরে লগি বৈঠার তা-বে চিরতরে হারিয়ে যাওয়া নারায়ণগঞ্জের শহীদ আবদুল্লাহ আল ফয়সাল। ফয়সালের রক্তে রঞ্জিত হয়েছিল ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের পিচঢালা পথ। ৫ বছর পার হলেও তার হত্যাকারীদের বিচার তো হয়ই নি, উল্টো বর্তমান সরকার ক্ষমতায় আসার পর রাজনৈতিক মামলা বলে মামলাটিই প্রত্যাহার করে নিয়েছে।

২০০৬ সালের ২৮ অক্টোবর নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জের চিটাগাং রোডে ছাত্রশিবিরের মিছিলে হামলা চালায় লগি বৈঠা বাহিনী। উল্লাসের সাথে লগি বৈঠা সন্ত্রাসীরা আগাত করতে থাকে নেতাকর্মীদের উপর। এ সময় শহীদ আবদুল্লাহ আল ফয়সালের বড় ভাই ফাহাদ বিন আহসানকে ঘিরে ফেলে লগি বৈঠা সন্ত্রাসীরা। কাছেই ছিল ফয়সাল। ভাইকে বাঁচাতে এগিয়ে যান তিনি। লগি বৈঠার আঘাত এসে পড়তে থাকে তার উপর। এক পর্যায় মাথায় আঘাত পেয়ে মাটিতে লুটয়ে পড়েন তিনি। দুই ভাই সংজ্ঞা হারিয়ে ফেলেন। হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় তাদের। পরদিন রাত সাড়ে ৮টায় ঢাকায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকা অবস্থায় পরপাড়ে পাড়ি জমান ফয়সাল। এ হত্যাকা-ের পর শিবির নেতা আবু বকর বাদী হয়ে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় ৬০ জনকে আসামী করে মামলা দায়ের করেন। মামলাটি তদন্তের দায়িত্ব পান দারোগা মোহাম্মদ আলী। পুলিশ মামলাটি তদন্তের নামে কালক্ষেপণ করতে থাকে। আর বর্তমান সরকার ক্ষমতায় আসার পর তো পুরো মামলাটিই প্রত্যাহার করে নেয়।

শহীদ ফয়সালের বাসা নারায়ণগঞ্জ জেলার সিদ্ধিরগঞ্জ উপজেলার সানারপাড়ের পাইনাদী মোস্তফানগর। তার পিতা মরহুম মাওলানা আহসানুল হাই। মা হাসনা বানু গৃহিণী। ৫ ভাই ২ বোনের মধ্যে তিনি ছিলেন দ্বিতীয়। তিনি জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতিতে অনার্স দ্বিতীয় বর্ষের অধ্যয়ন করছিলেন। পাশাপাশি স্থানীয় হাজী শামসুদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়ে খ-কালীন শিক্ষক ছিলেন।

Comments are closed.